বাতের ব্যথা, শ্বাস কষ্ট থেকে ব্লাড প্রেসার, নিয়ন্ত্রণে রাখুন আম পাতা

শীতের পর ধীরে ধীরে গ্রীষ্মের আগমন ঘটে। আর তার সাথে আগমন ঘটে ফলের রাজা আমের। আম পছন্দ করে না এমন মানুষ খুবই কম। আমের মধ্যে রয়েছে অনেক উপকারি গুণ। জানেন কি আম পাতাতেও থাকে উপকারি গুণ? এতে রয়েছে ভিটামিন, এনজাইম, অ্য়ান্টিঅক্সিডেন্ট, খনিজ উপদান।
আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে আম পাতা ব্যবহারে কী কী রোগ নিরাময় হয়, তার বর্ণনা দেওয়া রয়েছে। আম পাতায় মেঞ্জিফিরিন নামক একটি সক্রিয় উপদান থাকে যা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল। এবার দেখে নেওয়া যাক আর কি কি উপকারিতা রয়েছে আম পাতায়…
আম পাতার ৭ আশ্চর্য স্বাস্থ্যগুণ: যদি আপনার খেতে বসে বার বার হেচকি ওঠে তাহলে, আম পাতা পুড়িয়ে তার ধোঁয়া নাকের কাছে ধরুন। দেখবেন, দ্রুত এই সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন। বাতের সমস্যা থাকলে কচি আম পাতা জলে ফুটিয়ে প্রতিদিন সেই জল খান। উপকার পাবেন।
আঁচিল নিরাময়ে আম পাতা খুবই উপকারি। আম পাতা পুড়িয়ে কালো করে নিন। সেই গুঁড়োর মধ্যে সামান্য জল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আঁচিলে লাগান। দ্রুত সেরে যাবে। প্রতিদিন সকালে আম পাতা শুকিয়ে গুড়ো করে এক গ্লাস জলে মিশিয়ে খান। কিডনিতে পাথর জমার সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন।
আমপাতা ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। আপনি কি শ্বাস কষ্টে ভোগেন? তাহলে প্রতিদিন সকালে আম পাতা দিয়ে তৈরি চা খান। উপকার পাবেন। আম পাতার সাহায্যে ক্ষত নিরাময়ে করা সম্ভব। আম পাতা পুড়িয়ে যে ছাই হচ্ছে তা ক্ষত স্থানে লাগান। উপকার পাবেন।
সংগৃহীত