মিল্কীর কথা-সুরে আকাশবাড়ীর ৬ গান

তৌহিদুল আলম মিল্কী। পেশায় ব্যবসায়ী, কিন্তু গান-কবিতায় বিচরণ তার শৈশব থেকেই। গীটার হাতে গান গেয়ে স্কুল-কলেজের গন্ডি মাতিয়ে দিতে পারতেন খুব সহযেই। গান লিখতেন, সুর দিতেন। সেই গান বন্ধু-বান্ধবদের গেয়ে শোনাতেন, মতামত নিতেন কেমন হচ্ছে? ঐসব গান গুলোর একটা খন্ড কবিতার রুপ নিয়ে ১৯৮৯ সালের বই মেলায় ‘যে আমি শুধুই তোমার’ শিরোনামে প্রকাশ হয়েছিলো তার একটি কাব্য্যগ্রন্থ। লেগে থাকলে এতদিন অতি পরিচিত কবি, গায়ক বা গীতিকারের তালিকায় হয়ত নামও উঠে যেত তার। কিন্তু শিক্ষা জীবন এবং পারিবারিক ব্যবসার দায়িত্বে জড়িয়ে যাওয়ায় ইচ্ছা থাকলেও গান কবিতায় সময় দিতে পারেন নি। তবে যখনই সময় পেয়েছেন চর্চা চালিয়ে গেছেন নিজের মত
করে এবং নীরবে। কবিতা আর গান লিখে রাখতেন ব্যক্তিগত ডায়রীর পাতায় পাতায়। সে ডায়রী থেকেই বাছাই করা কিছু গান প্রকাশের প্রস্তুতি নিয়েছেন মিল্কী। সম্প্রতি হালের জনপ্রিয় কয়েকজন শিল্পীর কণ্ঠস্থ হয়েছে তার লেখা এবং সুরারোপিত ৬টি গান। এই গান গুলো প্রকাশের জন্য নতুন প্লাটফমর্ও বানিয়েছেন তিনি ‘আকাশবাড়ী কমিউনিকেশনস’ নামে। স্বনামখ্যাত হলিডে ট্যুরস এন্ড ট্র্যাভেল কোম্পানী আকাশকাড়ি হলিডেজ এর অংগ প্রতিষ্ঠান এই ‘আকাশবাড়ি কমিউনিকেশনস’। তিনি এই দুই প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী। এখন তার পরিকল্পনা নিজের লেখা এবং সুর করা গান গুলো তিনি তুলে দেবেন দেশের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পীদের কণ্ঠে। এরই অংশ হিসেবে প্রথম ধাপে একসঙ্গে নতুন ৬টি গান মুক্তি পাচ্ছে আকাশবাড়ি কমিউনিকেশনস এর ইউটিউব চ্যানেলে। বেলাল খান, এফ এ সুমন, সুফি গানের শিল্পী শফি মন্ডল এবং পলাশের কণ্ঠে রেকর্ড করা হয়েছে তার কথা ও সুর এবং সঙ্গীত পরিচালনায় ৫টি গান, মিল্কী নিজেও গেয়েছেন একটি গান। গান গুলোর সঙ্গীত আয়োজন করেছেন তমাল হাসান। বেলাল খানের কণ্ঠে ‘আমি একটু একটু করে.. যাচ্ছি দূরে সরে’ শীর্ষক গানটি ইতোমধ্যেই মুক্তি পেয়েছে আকাশবাড়ির ইউটিউব চ্যানেলে এ। বাকী গান গুলো মুক্তির পাইপ লাইনে। আজকালের মধ্যেই মুক্তি পেয়ে যাবে ব্যক্ত করে মিল্কী বলেন,‘আকাশবাড়ী কমিউনিকেশনস সবার জন্যই। এটি প্রফেশনাল এ্যাঙ্গেলেই মুভ করবে। পেশাদার জনপ্রিয় শিল্পীদের পাশাপাশি প্রতিশ্রæতিশীল এবং গান নিয়ে যারা এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখেন তাদের জন্য সর্বোচ্চ সুযোগ প্রদানের একটি প্লাটফর্ম হিসেবে কার্যক্রম পরিচালনা করবে আকাশবাড়ী কমউিনিকেশনস। আমি যতদূর জানি গানের বাজার আর আগের মত নেই। প্রযুক্তিগত কারণে গানের অ্যালবাম এখন সিঙ্গেল ট্র্যাক হয়ে গেছে। আমি এই ধারাতেই কাজ করবো এবং বিনিয়োগ করবো।’
আলমগীর কবির