‘পরাণ’ ইউরোপ-আমেরিকায়

ঈদুল আজহায় মুক্তি পেয়েছে ‘পরাণ’ সিনেমা। শুরুতে স্বল্প সংখ্যক প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলেও ধীরে ধীরে এর প্রেক্ষাগৃহের সংখ্যা বাড়তে থাকে। রায়হান রাফি পরিচালিত ও লাইভ টেকনোলজিস প্রযোজিত সিনেমাটি মুক্তির এক মাস পেরিয়েও দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। সিনেমাটি চলচ্চিত্রের স্থবিরতা কাটিয়ে তুলেছে বলে অনেকেই মত দিয়েছেন। শুধু দেশেই নয়, দেশের বাইরে বাংলা ভাষাভাষীদের মধ্যেও ‘পরাণ’ নিয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে বায়োস্কোপ ফিল্মসের পরিবেশনায় ‘পরাণ’ সিনেমা ইউরোপ ও আমেরিকায় মুক্তি পেতে যাচ্ছে। বিদেশে সিনেমাটি মুক্তি দেয়া প্রসঙ্গে লাইভ টেকনোলজিসের পরিচালক ইয়াসির আরাফাত বলেন, ‘আমরা একটা পরিচ্ছন্ন সিনেমা তৈরি করেছি। সিনেমাটি মুক্তির অষ্টম সপ্তাহেও দর্শক আগ্রহ রয়েছে। এবার আমেরিকা ও কানাডা প্রবাসীদের জন্য সিনেমাটি মুক্তি দেয়া হচ্ছে। আশা করছি, সবাই সিনেমাটি ভালোভাবেই উপভোগ করবেন।’ আমেরিকা ও কানাডায় ‘পরাণ’ সিনেমার পরিবেশক বায়োস্কোপ ফিল্মসের সিইও রাজ হামিদ বলেন, ‘পরাণ মুক্তির পর থেকেই আমেরিকা ও কানাডার বাঙালিরা সিনেমাটি দেখার জন্য মুখিয়ে রয়েছে। অবশেষে সবার আগ্রহে সিনেমাটি সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে মুক্তি দেওয়া হবে। সিনেমাটি নিয়ে আমরা দারুণ আশাবাদী।’ বায়োস্কোপ ফিল্মসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুবনা রশিদ বলেন, ‘আমরা আমেরিকা ও কানাডায় নিয়মিত বাংলা সিনেমা প্রদর্শন করে আসছি। দেবী সিনেমার পর পরাণ সিনেমা নিয়ে দর্শকের এত আগ্রহ দেখছি। নিয়মিত এমন গল্পের সিনেমা মুক্তি পেলে বাংলা সিনেমার দর্শক বাড়বে। পাশাপাশি সিনেমার বাজারও বড় হবে।’ ‘পরাণ’ সিনেমার এমন সফলতায় দারুণ খুশি সিনেমার কলাকুশলীরা। ‘পরাণ’ সিনেমায় অভিনয় করেছেন শরীফুল রাজ, বিদ্যা সিনহা মিম, রাশেদ অপু, ইয়াস রোহান, শিল্পী সরকার, নাসির উদ্দিন খান প্রমুখ।

রেদুয়ান খন্দকার