জন্মদিনে মর্তুজা বশীরের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা

মর্তুজা বশীর। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি গুলিবিদ্ধ বরকতের রক্তে ভিজে গেছিলো যার শার্ট। মিছিলেই ছিলেন এই ভাষা সৈনিক। গুলির মুখেও দৌড়ে গিয়ে ধরেছিলেন বরকতকে। আরও ক’জন ছাত্র মিলে নিয়ে গেছিলেন হাসপাতালে। বরকতকে বাঁচাতে না পারলেও বাংলাদেশের কৃস্টি, সংস্কৃতি, মানুষের জীবন কিংবা মহান মুক্তিযুদ্ধকে তিনি যেন জীবন্ত রেখেছিলেন তাঁর শিল্পকর্মে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান মুরালটি মর্তুজা বশীরের। প্রখ্যাত ভাষাবিদ ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ’র ছেলে মর্তুজা বশীর বিচরন করেছেন দৃশ্যশিল্পের সকল শাখায়। পাশাপাশি সাহিত্য ও চলচ্চিত্রেও রেখেছেন অবদান। চিত্রকলায় গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য পেয়েছেন ‘একুশে পদক’। গতবছর (২০২০) ১৫ আগস্ট প্রয়াত হন মর্তুজা বশীর। আজ তাঁর জন্মদিন। ১৯৩২ সালের ১৭ আগস্ট ঢাকায় জন্ম নেন এই শিল্পী। মর্তুজা বশীরের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে প্রার্থনা করি, তাঁর আত্মা যেন শান্তিতে থাকে।
মুজতবা সউদ