অরুনা বিশ্বাস: শুভ জন্মদিন

একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য দুই শিল্পী অমলেন্দু বিশ্বাস ও জ্যোৎস্না বিশ্বাস দম্পতির সুযোগ্য উত্তরসূরী বিশিষ্ট চলচ্চিত্রাভিনেত্রী ও বর্তমান বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য অরুনা বিশ্বাসের জন্মদিন আজ। একজন শিল্পী তার পেশাগত কাজে যদি সারা জীবন সৎ থেকে অনায়াসে কাজ করে যান তবে সেই শিল্পী সারা জীবনই দর্শকের ভালোবাসা কাজের মধ্যে থেকেই দর্শককে ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে পারেন।
অরুনা বিশ্বাস ঠিক তেমনি একজন অভিনেত্রী। অরুনা জানান জন্মদিনকে ঘিরে বিশেষ কোনো আয়োজন নেই তার। বছরের অন্যান্য দিনের মতোই একটি সাধারণ দিনের মতো করেই কাটবে তার এবারের জন্মদিন। অবশ্য এবারের জন্মদিনকে তিনি কোনোরকম উৎসবেও পরিণত করার কোনোরকম আগ্রহও ছিলো না তার। কারণ সারাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো নয়। বিশেষ করে সাধারণ মানুষ খুব বেশি ভালো নেই।
অরুনা বিশ্বাস বলেন, ‘আজ আমার জন্মদিন, তবে দিনটিকে ঘিরে কোনোই বিশেষ পরিকল্পনা নেই। কারণ দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি, গুজব সব মিলিয়ে কোনোদিক দিয়েই সাধারণ মানুষ ভালো নেই। আপাত দৃষ্টিতে এই তিনটি গুরুতর সমস্যার দ্রুত সমাধান হোক। সাধারণ মানুষের জীবনে শান্তি নেমে আসুক, এটাই কামনা। আমরা যারা আর্থিকভাবে মোটামুটি স্বচ্ছল আছি তাদের জীবন কোনো না কোনোভাবে কেটে যায়। কিন্তু অর্থনৈতিকভাবে যারা স্বচ্ছল নয় তাদের জীবন নির্বাহ করা খুব কঠিন হয়ে পড়ে। সেই সব মানুষদের জীবনে যেন শান্তি ফিরে আসে এই প্রার্থনাই করছি। আমিও নানানভাবে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি।’
শতাধিক সিনেমার নায়িকা হিসেবে অভিনয় করা গুনী অভিনেত্রী অরুনা বিশ্বাস বর্তমানে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য হিসেবেও গুরু দায়িত্ব পালন করছেন। সর্বশেষ তিনি জাকির হোসেন রাজুর ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ সিনেমাটি দেখেছেন।
অরুনা বলেন, ‘খুব ভালো গল্পের একটি সিনেমা এটি। দীর্ঘদিন পর একটি ভালোলাগার মতো বাংলা সিনেমা দেখলাম। এই ধরনের সিনেমা বেশি বেশি নির্মিত হওয়া উচিত। তাহলে দর্শক হলে ফিরবেন নি:সন্দেহে।
এদিকে চলতি মাস থেকেই আবারো অরুনা বিশ্বাস এম রাহিম পরিচালিত ‘শান’ সিনেমার শুটিং শুরু করবেন। এতে তার মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন পূজা চেরী। ভারতেশ্বরী হোমস’র সাবেক ছাত্রী অরুনা বিশ্বাস নায়ক রাজ রাজ্জাকের নির্দেশনায় প্রথম ‘চাপা ডাঙ্গার বউ’ সিনেমায় অভিনয় করেন। তার অভিনীত প্রথম টিভি নাটক নরেশ ভূঁইয়া রচিত ও জিয়া আনসারী প্রযোজিত ‘এখানেই জীবন’। এতে তার সহশিল্পী ছিলেন আফজাল হোসেন।
রোমান রায়