আব্দুল আলীমের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা

“সব সখীরে পার করিতে নেব আনা আনা” কিংবা, পরের জায়গা পরের জমিন, নাইয়া রে নায়ের বাদাম তুইলা, সর্বনাশা পদ্মা নদী, হলুদিয়া পাখী সোনারই বরণ, এই যে দুনিয়া কিসেরও লাগিয়া, দোল দোল দুলনি রাঙা মাথায় চিরুনী, দুয়ারে আইসাছে পালকি নায়রি গাও তলো, মনে বড় আশা ছিল যাবো মদীনায়, এমন সব গান কি কোনকালে হারিয়ে যেতে পারে? পারেনা। তাই কখনো, কোনকালেই বাংলা গানের ভূবণ থেকে হারিয়ে যাবেননা আব্দুল আলীম। বাংলা ভাষাভাষী মানুষের কাছে যাঁকে পরিচয় করিয়ে দেবার কোন অবকাশ নেই। বাংলা লোক সংগীতকে তিনি নিয়ে গেছিলেন অবিশ্বাস্য উচ্চতায়। সুর, কথা, ভাববাদী দর্শন এবং মানুষের জীবন যেন একাকার হয়ে, মূর্ত হতো তাঁর কন্ঠে। পেয়েছেন একুশে পদক (মরণোত্তর), বাচসাস পুরস্কার সহ অনেক অনেক পুরস্কার, পদক ও সম্মাননা। এই লোক সংগীত সম্রাট ১৯৩১ সালের ২৭ জুলাই, অবিভক্ত ভারতের মুর্শিদাবাদ জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। বিনম্র শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসা আব্দুল আলীম এঁর স্মৃতির প্রতি।
মুজতবা সউদ