বীর মুক্তিযোদ্ধা ম হামিদের জন্মদিনে শুভেচ্ছা

ম হামিদ। বীর মুক্তিযোদ্ধা। তার নামটি উচ্চারনের পর শিল্প ও সংস্কৃতি অংগনের মানুষের কাছে কিছু বলার প্রয়োজন পড়ে না। এ দেশে আধুনিক নাট্য আন্দোলনের পুরোধা ব্যাক্তিত্ব ম হামিদ। কলেজে পড়ার সময়ই তিনি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সাংস্কৃতিক সম্পাদক ছিলেন। স্বাধীনতার পর তাঁর উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত হয় নাট্যচক্র। যা এ দেশে নাট্যচর্চায় নতুন মাত্রা এনে দেয়। পরবর্তীতে বিসিএস তথ্য ক্যাডারে অত্যন্ত সততা ও নিষ্ঠার সংগে কাজ করেছেন। সে সময় সরাসরি রাজনীতি না করলেও স্বাধীনতার স্বপক্ষ শক্তির সংগে থেকেছেন। মুখোমুখি হয়েছেন নানান প্রতিকূলতার। নিমকো, বাংলাদেশ টেলিভিশন, এফডিসিতে পালন করেছেন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব। অবসরের পরেও চুক্তি ভিত্তিক নিয়োগে বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন। বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের চেয়ারম্যান ছিলেন। এখনও মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান। বলা যেতে পারে আজীবন স্বাধীনতার পক্ষ শক্তির এক বীর যোদ্ধা ম হামিদ। অমায়িক, সজ্জন, স্বল্পভাষী এই মানুষটির সংগে দীর্ঘ প্রায় ৩৫ বছরের পরিচয়ে কখনও তাকে কারো সংগে রেগে বা উচ্চস্বরে কথা বলতে দেখিনি। নাটকে অসামান্য অবদানের জন্য পেয়েছেন শিল্পকলা পদক। এছাড়া বদরুদ্দিন হোসেন স্মৃতি পুরস্কার সহ আরও অনেক পুরস্কার, পদক ও সম্মাননা। আজ, ১ এপ্রিল এই বীর মুক্তিযোদ্ধার জন্মদিন। শুভেচ্ছা হামিদ ভাই। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন জীবনের প্রতিটি বছর।
মুজতবা সউদ ‌‌