আজ সুবাহ’র জন্মদিন

ঢাকার চলচ্চিত্রের আলোচিত নবাগত নায়িকা শাহ হুমায়রা সুবাহ। রফিক শিকদারের “বসন্ত বিকেল” ছবির মাধ্যমে ঢালিউডে পা রাখেন এই সুদর্শনা তরুণী। ছবির শুটিং গেলো বছরের ৯ ডিসেম্বর থেকে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত করলেন সুবাহ। আজ শুক্রবার এই নিউ ট্যালেন্ট গ্ল্যামার গার্ল এর জন্মদিন। অন্যান্য বছর জন্মদিনে খুব ঘটা করে অনুষ্ঠান না করলেও আজকের জন্মদিনে সুবাহ জমকালো একটি বার্থ ডে পার্টির আয়োজন করেছেন বলে জানান। এই প্রতিবেদককে সুবাহ জানান, আজ সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে তিনি শোবিজ মিডিয়ার পরিচিত জন এবং বন্ধু – বান্ধব ও আত্মীয় – স্বজনদের নিয়ে এই অনুষ্ঠানে তিনি জন্মদিনের কেক কাটবেন। আজকের জন্মদিনের পার্টি প্রসঙ্গে সুবাহ বলেন, সব সবসময় জন্মদিনে কেক কাটি ফ্যামিলি মেম্বার এবং ফ্রেন্ডস সার্কেল নিয়ে। আমি আব্বু – আম্মুর অনেক আদরের মেয়ে। এই জন্য ওনারা গরিব মানুষের খাবারের আয়োজন করেন প্রতিবছর। কিন্তু এইবার আমি ভিন্নভাবে করছি। কারণ, মিডিয়ার অনেক চেনামুখকে দাওয়াত দিয়েছি আজ। আশা করছি – আমার কাছের মানুষের সবাই আসবেন। এটা নিয়ে আমি খুব এক্সাইটেড। আমার কাছে আমার জন্মদিন মানে ঈদের দিনের খুশির মতো। আমার অভিনীত পাঁচটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায়। সবার কাছে জন্মদিনে আমি দোয়া ও ভালোবাসা চাই। সবার দোয়া আর ভালোবাসা পেলে অবশ্যই আমি আমার স্বপ্নের জগতে ঠিকই নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠা ও জনপ্রিয়তা পেতে সক্ষম হবো। এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে সুবাহ জানান, সম্প্রতি তিনি নতুন একটি ছবির শুটিং শেষ করছেন। এই ছবির নাম “মন বসেছে পড়ার টেবিলে”। নতুন ছবি প্রসঙ্গে সুবাহ বলেন, করোনার মধ্যে কয়েকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হলেও শুটিং করিনি। মহামারীর ভয় কাটিয়ে শুটিংয়ে ফিরেছি। আশা করছি – নিজের মেধা – প্রতিভার কল্যাণে পেশাগত ক্ষেত্রে আমি ব্যস্ত হয়ে উঠবো। সুবাহ জানান, মান্নান গাজীপুরীর পরিচালনায় নির্মিত “মন বসেছে পড়ার টেবিলে” ছবিতে তিনি অভিনয়ের আগে জয় সরকারের “মতি বানু” নামের আরেকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন। তার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবিগুলো হলো মোহাম্মদ আসলামের “বদলা” ও “সমাধান” এবং দেওয়ান নাজমুলের “তোরে কত ভালোবাসি।” নিউ ট্যালেন্ট গ্ল্যামার গার্ল শাহ হুমায়রা সুবাহ “মন বসেছে পড়ার টেবিলে” ছবি প্রসঙ্গে জানান, ২০০৯ সালে মুক্তি পাওয়া জনপ্রিয় জুটি রিয়াজ – শাবনূর অভিনীত আব্দুল মান্নান পরিচালিত “মন বসে না পড়ার টেবিলে” ছবির সিক্যুয়াল হচ্ছে নতুন এই ছবিটি। একই পরিচালক ছবিটি নির্মাণ করেছেন। এই ছবিতে নিজের চরিত্র নিয়ে সুবাহ বলেন, ছবিতে আমার চরিত্র স্কুল পড়ুয়া ফাঁকিবাজ একটা মেয়ের। পড়ালেখা না করে শুধু ফাঁকি দেয়। একটা পর্যায়ে পড়ায় মন বসে। এমনই একটি রোমান্টিক গল্প নিয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ছবিটি। এটি সবার ভালো লাগবে বলেই আমার বিশ্বাস।
রোমান রায়