শ্যামসুন্দর কোম্পানি জুয়েলার্স এর শারদ সুন্দরী ২০২০এর গ্র্যান্ড ফিনাল অনুষ্ঠিত

শীতের আমেজে এই শহরে কিছুটা উষ্ণতা ছড়াল শ্যাম সুন্দর কোম্পানি জুয়েলার্স এর শারদ সুন্দরী ২০২০ গ্র্যান্ড ফিনালে। এই অনুষ্ঠানে শো স্টপার ছিলেন বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় জুটি অঙ্কুশ-ঐন্দ্রিলা। এবারের তিন বিজয়ী শারদ সুন্দরীর সাথে উপস্থিত ছিলেন কোম্পানির দুই কর্ণধার রূপক সাহা ও অর্পিতা সাহা। সেরা তিন বিজয়িনী হলেন কীর্তিকা সিং (প্রথম), ডোনা মন্ডল (দ্বিতীয়) এবং উদীশা সিংহ (তৃতীয়)। শারদ সুন্দরী ত্রিপুরা হলেন সতীর্থা দেবনাথ।
বিগত বছর গুলোর মতোই শ্যাম সুন্দর কোম্পানি জুয়েলার্স উপস্থাপনা করলেন শারদ সুন্দরী ২০২০। আমরা প্রায় সকলেই জানি, সুন্দর মুখের খোঁজের জন্য খুবই জনপ্রিয় এবং বহুল প্রতীক্ষিত বার্ষিক এই উদ্যোগ দুর্গাপূজার সময় বেশ নজর কাড়ে এবং এই বছর শারদ সুন্দরীর ৮ম বর্ষ পূর্ণ হল।অন্যান্য বছরগুলিতে জনপ্রিয় পূজা প্যান্ডেল, প্রিমিয়াম আবাসন এবং প্রিমিয়ার কলেজ ক্যাম্পাস গুলোয় সুন্দরী মুখের খোঁজ চলেছিল। সেইসব জায়গা থেকে শারদ সুন্দরী বাছাই করা হয়েছিল কিন্তু এই বছর, কোভিড -১৯ এর জন্য সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে অনুসন্ধান সম্পন্ন হল সম্পূর্ণ অনলাইনে ডিজিটাল পদ্ধতিতে। আশাতীত ভাবেই প্রতিযোগীদের সংখ্যা বিগত বছর গুলোর সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল।
অনলাইনে আসা পনেরো হাজারের মতো প্রতিযোগীদের মধ্যে বেছে নেওয়া হয় সেরা বারো সুন্দরীকে। এদিনের অনুষ্ঠানে দুই রাউন্ডে সেরাদের বাছাই পর্বে বিচারকের আসনে ছিলেন সুদর্শন চক্রবর্তী, রাজা চন্দ, প্রণব দাশগুপ্ত, বিবেক দাস, পিয়ান সরকার প্রমুখ। প্রথম রাউন্ডে সোনার অলঙ্কারের সাথে অরগ্যানজা শাড়ির চোখ ধাঁধানো পরিবেশনা নজর কাড়ে।
দ্বিতীয় রাউন্ডে প্রতিযোগীদের পরনে ছিল হীরের গহনার সাথে প্যাস্টেল রঙের গাউন।সমগ্র সিকোয়েন্স এর মূল ভাবনায়-পরিচালনায় ছিলেন স্যান্ডি। সমগ্র অনুষ্ঠানটির সহ নিবেদনে ছিলেন বাঙালিদের পছন্দের খুকুমনি।
অরিত্র রায় চৌধুরী, (কর্ণধার), খুকুমনি, অনুষ্ঠানের নেপথ্য কারিগরদের সম্মানিত করেন। স্বাদ্ধির নৃত্য পরিবেশনায় মুগ্ধ হন বিচারক থেকে উপস্থিত সকলেই।
কাঞ্চনময় ভট্টাচার্যের গানে কিশোর কুমার পরে কুমার শানুর গানের কোলাজ সুরে, সুরে মন ভরিয়ে দেয়। শ্যাম সুন্দর কোম্পানি জুয়েলার্স এর পরিচালক শ্রী রূপক সাহা বলেন, “কোভিড -১৯ বিধিনিষেধ অনেক সমস্যা তৈরি করলেও আমরা এর ফর্ম্যাটটি অন্য ভাবে ভেবে অনলাইনে নিয়ে এসেছিলাম। এতে প্রতিযোগিদের অংশগ্রহণ করতে অনেক সুবিধা হয়েছে। প্রতিযোগীদের শারদসুন্দরী ডট কম এ গিয়ে তাদের এই উৎসবের সেরা মুহূর্তের ফটোগ্রাফ পাঠাতে হয়েছিল। আশাতীত ভাবে পনেরো হাজারের বেশী প্রতিযোগী যোগ দেন এই শারদ সুন্দরী প্রতিযোগিতায়। সেরা বারো জন এদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তাদের মধ্যে থেকে বিচারক মন্ডলীর নিখুঁত বিচারের মধ্যে থেকে বেছে নেওয়া হল এবারের শারদ সুন্দরীকে।”
গোপাল দেবনাথ, কলকাতা