না জেনে মিথ্যা কথা রটানো ঠিক না : দীঘি

জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। শিশুশিল্পী হিসেবে রূপালি পর্দায় পা রাখেন তিনি। পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও। গত বছরের শেষের দিকে দীঘির রাজকীয় প্রত্যাবর্তন ঘটে। শাপলা মিডিয়ার নতুন ছবির সুবাদে ছোট দীঘি নায়িকা হিসেবে যাত্রা শুরু করেন। শুরুটা হয় শামীম আহমেদ রনির ‘টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই’ ছবি দিয়ে। কথা ছিল একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের আরও পাঁচটি ছবিতে কাজ করবেন তিনি। তবে সম্প্রতি সিনেমাপাড়ায় কথা রটেছে, সে ছবিগুলো থেকে বাদ পড়েছেন দীঘি।
এ বিষয়ে কথা হলে তিনি বলেন, ‘শাপলা মিডিয়ার একটি ছবিতে কাজ করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলাম। সেটার শুটিংও করেছি। বাকি ছবিগুলোর বিষয়ে মৌখিকভাবে কথা হয়েছে, কাগজে-কলমে নয়। চুক্তি না হলে ছবি থেকে বাদ পড়লাম কীভাবে! না জেনে এসব কথা রটানো ঠিক না। একজন শিল্পীর কাছে “বাদ” পড়া শব্দটি শুনতে খুব খারাপ লাগে।’
এদিকে, বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন দীঘি। বর্তমানে এর শুটিংয়ে মুম্বাই অবস্থান করছেন তিনি। এতে বঙ্গবন্ধুর স্ত্রী বেগম ফজিলাতুন্নেছা রেণু’র কিশোরী বেলার চরিত্রে দেখা যাবে দীঘিকে।
তার ভাষ্য, ‘এই ছবির কাজে কোনো ছাড় দিতে চাই না। পুরো মনোযোগ দিয়ে, সেরা কাজটি দিতে চাই। এতো বড় ক্যানভাসের একটি ছবিতে কাজ করাটা সত্যিই সৌভাগ্যের। বায়োপিকে আমার কোনো মেকআপ নেই। সম্পূর্ণ ন্যাচারাল লুকে কাজ করছি। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এর শুটিং করবো। দেশে ফিরে আবার মার্চে এর শেষে শুটিংয়ে অংশ নেব। এরপরই শেষ আমার অংশের কাজ।’
রোমান রায়