জন্মদিনে বাপ্পীর চাওয়া

ঢাকার চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় তারকা বাপ্পী চৌধুরীর আজ (৬ ডিসেম্বর) জন্মদিন। নিজের জন্মদিন এবং সাম্প্রতিক সময়ে নতুন কিছু চলচ্চিত্রের কল্যাণে দারুনভাবে আলোচিত। বিশেষ করে তার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত “প্রিয় কমলা” নামের একটি ছবিতে তার ৭৫ বছর বয়সী লুক নিয়েই বেশি আলোচনা আর প্রশংসা হচ্ছে। যদিও নিজের আট বছরের চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারে বাপ্পী বিভিন্ন ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে বিভিন্ন সময়ে প্রশংসিত হয়েছেন। সাফল্য আর প্রশংসার ধারাবাহিকতায় এই সুদর্শন নায়ক তার অভিনয় জীবনে প্রথমবারের মতো মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করছেন। “প্রিয় কমলা” নামের এই ছবিটি পরিচালনা করছেন শাহরিয়ার নাজিম জয়।
সেদিন এই প্রতিবেদকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বাপ্পী চৌধুরী তার জন্মদিন কাটানো প্রসঙ্গে জানান, নিজের জন্মদিনের প্রথম প্রহর কাটিয়েছেন তার প্রিয় বাবা মাকে নিয়ে। বাপ্পী বলেন, আজ সকালেও বাবা – মাকে সময় দিয়েছি। বাসায় মায়ের হাতে রান্না করা আমার প্রিয় খাবারগুলো খেয়েছি। আজ রাতে আমার কাছের কয়েকজন বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে খাওয়ায় – আড্ডায় কিছুটা সময় পার করবো। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণেই ইচ্ছে থাকা সত্বেও এবারের জন্মদিনে কোন পার্টির আয়োজন করছি না।
জন্মদিনে নিজের চাওয়া পাওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাপ্পী বলেন, আমার নিজের জন্যে তেমন কোন চাওয়া নেই। চাওয়া একটাই – খুব তাড়াতাড়ি পৃথিবীতে শান্তি আসুক। করোনা মুক্ত পৃথিবী চাই। তেমনি দেশীয় চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরে আসুক, আবার সবাই কর্ম ব্যস্ত হয়ে ওঠি – এটাই কামনা করছি।
কথায় কথায় বাপ্পী জানান, গেলো ১৮ নভেম্বর থেকে গাজীপুরের পূবাইলে এই ছবির শুটিং শুরু হয়ে ৩০ নভেম্বর শেষ হয়েছে তার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত “প্রিয় কমলা” ছবির। ইতিমধ্যে ছবিটির ডাবিংও শেষ করেছেন বাপ্পী। কয়দিনের মধ্যেই ছবিটি সেন্সর বোর্ডে জমা পরবে। কারণ, আসছে ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে বলে জানান বাপ্পী। এই ছবিতে তার নায়িকা ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা অপু বিশ্বাস। বাপ্পী – অপু জুটির এটি দ্বিতীয় ছবি। এই জুটির প্রথম ছবি “শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ – ২” অনেক আগে নির্মাণ শেষে মুক্তির মিছিলে থাকলেও করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে নির্ধারিত তারিখে মুক্তি পায়নি। শেষমেষ দুই তারকা বাপ্পী – অপু জুটিবদ্ধ হয়ে পর্দায় প্রথমবার দর্শকদের অভিবাদন জানাবেন “প্রিয় কমলা” ছবি দিয়ে।
এই ছবিতে নিজের চরিত্র সম্পর্কে বাপ্পী এই প্রতিবেদককে বলেন, প্রথমদিকে আমাকে একজন ভবঘুরের মতো দেখা যাবে – যে গ্রাম থেকে গ্রামে বেকার ঘুরে বেড়ায় যেখানে – সেখানে আড্ডা মেরে আর ঘুরে বেড়িয়েই সে দিন কাটায়। এভাবেই চলতে চলতে কমলা নামের এক মেয়ের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। সেই পরিচয় ভালোলাগা পেরিয়ে ভালোবাসায় রূপ নেয়। কমলা আমার যত্ন করে, ভালোবাসায় সিক্ত করে। দেশে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশ মাতৃকার স্বাধীনতার জন্যে আমি যুদ্ধে যাই। মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে দেশ স্বাধীন করি। এভাবেই এগিয়ে যায় ছবির কাহিনী।
“প্রিয় কমলা” ছবিতে অভিনয় প্রসঙ্গে বাপ্পী চৌধুরী বলেন, প্রথমবার আমি মুক্তিযোদ্ধার চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমাদের দেশের মুক্তিযোদ্ধারা দেশের সূর্যসন্তান, তারা দেশের সম্মানিত ব্যক্তি। ক্যামেরার সামনে তাদের চরিত্র ধারণ করতে পেরে ভালো লেগেছে আমার। আশা করছি – আমার ছবির দর্শক ভক্তদেরও ছবিটি ভালো লাগবে।
জানা যায়, বাপ্পী সম্প্রতি আশরাফ শিশিরের পরিচালনায় “৫৭০” নামের একটি নতুন ছবিতে অভিনয় করেছেন। এই ছবিতে তিনি একজন সাহসী সৈনিকের চরিত্রে অভিনয় করেছেন বলে জানান।
বাপ্পী অবশ্য করোনা প্রাদুর্ভাব তথা দেশে লকডাউনের আগে দেবাশীষ বিশ্বাসের পরিচালনায় “শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ-২” ও সাফিউদ্দিন সাফির পরিচালনায় “সিক্রেট এজেন্ট” নামের দুটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। এর মধ্যে প্রথম ছবিটি মুক্তির তারিখ নির্ধারিত হলেও করোনা প্রকোপের ওই সময়ে দেশের সিনেমা হল বন্ধ করে দেওয়ার কারণে ছবিটি মুক্তির প্রক্রিয়া থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়। সামনেই হয়তো ছবিটি মুক্তি প্রক্রিয়ায় নতুন করে সামিল হবে। দ্বিতীয় ছবিটিও মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে।
উল্লিখিত ছবিগুলো ছাড়াও বাপ্পী “ডেঞ্জার জোন” নামের একটি ছবির কাজ কিছুদিন আগে শেষ করেছেন। এটির পরিচালক বেলাল সানি। এছাড়াও দীপঙ্কর দীপনের পরিচালনায় “ঢাকা ২০৪০” এবং ওয়াহিদুজ্জামান ডায়মন্ডের “কোভিড-১৯” নামের ছবি দুটির কাজ হাতে রয়েছে তার। এই দুটি ছবির অবশিষ্ট অংশের কাজ শীঘ্রি শুরু হবে বলে জানা গেছে।
এই বিজয় দিবসে মুক্তি প্রতীক্ষিত “প্রিয় কমলা” ছবি প্রসঙ্গে বাপ্পী বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত এই ছবিটি মুক্তিযুদ্ধ কালীন অসাধারণ এক নিটোল প্রেমের গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে। দিন রাত পরিশ্রম করে দ্রুততার সঙ্গে ছবিটির শুটিং – ডাবিং শেষ করেছি সবাই মিলে। আমার বিশ্বাস – এই ছবিতে দর্শক – ভক্তরা নতুন এক বাপ্পী চৌধুরীকে খুঁজে পাবেন।
তুষার আদিত্য