কালোত্তীর্ণ উপন্যাসের নায়ক বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

তখন ১ টাকায় ১ মন ধান পাওয়া যেত। ৫০/৬০ টাকা বেতনের চাকুরী পেলেই মানুষ খুশি। ১০০/১৫০ টাকা বেতনে সুখী। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বেতন পেতেন ২০০ থেকে ৮০০ টাকা। একজন ম্যাজিস্ট্রেট সস্ত্রীক এসেছেন ষ্টেশনে। তাঁর অপরুপা স্ত্রী প্ল্যাটফরমে হাঁটছিলেন। এক যুবক ঘুরঘুর করছিলো সেই অপরুপার আশেপাশে। দৃষ্টি আকর্ষণের, কথা বলার চেষ্টা করছিলো। ম্যাজিস্ট্রেট এগিয়ে গেলেন। যুবককে ইশারায় ডেকে দূরে নিয়ে গেলেন। জিজ্ঞেস করলেন “বেতন কত?” যুবক বেশ ভাব নিয়ে বলল, “১০০ টাকা।” ম্যাজিস্ট্রেট মৃদু হেসে বললেন, “আমি ৫০০ টাকা বেতন পেয়েও, মন পেলাম না, তুমি ১০০ টাকা নিয়ে খামাখা ঘুরে সময় নষ্ট করছ !”
এই ম্যাজিস্ট্রেটের নাম বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়। বাংলা উপন্যাসের ভিত্তি তৈরি করেছেন যিনি। বৈঠকি ঢঙ্গে, অসাধারন শব্দচয়নে লিখেছেন কালোত্তীর্ণ সব উপন্যাস। গতকাল ছিল তাঁর জন্মদিন। ১৮৩৮ সালের ২৭ জুন কোলকাতার নৈহাটিতে তিনি জন্ম নেন। বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় কে জন্মদিনের শুভেচ্ছা।
মুজতবা সউদ