মানবসেবায় অধরা খান

মাঝখানে টানা বেশ কিছু দিন সংযুক্ত আরব আমিরাতে কাটিয়ে দেশে ফিরেছিলেন নিউ ট্যালেন্ট গ্ল্যামার গার্ল অধরা খান। দেশে ফিরে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই ছিলেন ঢাকার চলচ্চিত্রের আলোচিত এই উঠতি তারকা। তখন তরুণ প্রজন্মের আলোচিত নায়িকা অধরা খান জানিয়েছিলেন একটি সুখবর। সেটি ছিল – একটা বিরতির পর আবার বড় পর্দায় হাজির হবেন “মাতাল” খ্যাত এই নায়িকা। খুব শীঘ্রি নিজের নতুন ছবি নিয়ে দর্শক ভক্তদের অভিবাদন জানাবেন অধরা খান। তখন তিনি জানান, সামনেই মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার অভিনীত নতুন ছবি “পাগলের মতো ভালোবাসি”। ছবিটি পরিচালনা করেছেন বানিজ্যিক ছবির সফল নির্মাতা শাহীন সুমন।
কিন্তু চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সব কিছু সাময়িক উলট পালট করে দিয়েছে বলে জানালেন অধরা খান। বাংলাদেশেও করোনা নিয়ে জনজীবন থমকে গেছে। তাই শিল্পী হিসেবে নিজের সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে গতকাল কিছু মানুষের ঘরে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিলেন তিনি।
এই প্রতিবেদককে অধরা খান জানান, রাজধানী ঢাকার নন্দীগ্রাম দক্ষিণ বনশ্রী এলাকার একশ পরিবারকে এসব খাদ্য সামগ্রী তিনি ও তার সহযোগীরা পৌঁছে দিয়েছেন। আগামী সপ্তাহেও এই রকম আরেকটি কার্যক্রম পালন করবেন বলে জানালেন অধরা খান।
কাদের এই খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে ? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ধনী বা গরীব এমন বাছ বিচার করিনি আমরা। সত্যিকার অর্থেই যাদের এগুলো দরকার ছিল – আমরা তাদেরকেই এগুলো প্রদান করেছি।
কিছুদিন আগে অধরা খানের সম্প্রতি ফেসবুক পেজ ভেরিফাইড হওয়ার পর গ্ল্যামার গার্ল অধরা খান বলেছিলেন, আমার নতুন খবর হচ্ছে ফেসবুক পেজ ভেরিফাইড হওয়ার পাশাপাশি আমার তিনটি নতুন ছবিতে অভিনয়ের বিষয়ে কথা চলছে। এগুলোর মধ্যে খুব শীঘ্রি একটির শুটিং শুরু হবে। সেটি মার্চ মাসেই শুটিং ফ্লোরে যাওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে শুটিং শিডিউল পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে এসব ছবির নাম ও আমার বিপরীতে কে থাকছেন – তা এখনই বলতে চাই না। কাজগুলো নিয়ে আমি বেশ আশাবাদী। আমার বিশ্বাস – এগুলো ভালো প্রজেক্ট হবে।
সম্প্রতি এই প্রতিবেদককে অধরা খান ভারতের কলকাতা থেকে মেসেঞ্জারে জানান, তার অভিনীত প্রথম ছবি “পাগলের মতো ভালোবাসি” ছবিটি সেন্সর সার্টিফিকেট পেয়েছে। তিনি জানান, ৮ মার্চ ছবিটি সেন্সর সার্টিফিকেট পেয়েছে। এই প্রসঙ্গে অধরা খান বলেন, এটি আমার জন্যে খুবই খুশির খবর। এটি আমার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ারের প্রথম ছবি। এই ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে আমার চিত্রনায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটে। এই কারণে ছবিটির প্রতি আমার ভালোবাসা একটু বেশিই। আমি আনন্দবোধ করছি এই জন্যেই যে, ছবিটি অবশেষে মুক্তির মিছিলে সামিল হলো।
অধরা খান ২০১৮ সালের শেষদিকে নায়ক বাপ্পির বিপরীতে “নায়ক” ছবির মাধ্যমে বড়পর্দায় অভিষিক্ত হন। একই বছরে তার অভিনীত “মাতাল” ছবিটিও মুক্তি পায়। এছাড়া গেলো বছর অপূর্ব-রানা পরিচালিত “উন্মাদ” ছবির বেশকিছু অংশের কাজ করেন অধরা খান। এই ছবিতে তার বিপরীতে রোশান ও কলকাতার এক জনপ্রিয় নায়ককে দর্শকরা দেখতে পাবেন। ছবিটির বাকি কাজ সামনে শুরু হবে বলে জানান তিনি।
অধরা খান বলেন, আমরা সবাই করোনা থেকে মুক্তি পাওয়ার পর পরবর্তী শুটিংয়ের আগে “উন্মাদ” ছবির পরিচালক জানাবেন অন্য নায়কের নাম। খুব শীঘ্রি ছবিটির দ্বিতীয় লটের শুটিং শুরু হচ্ছে।
অধরা খানের মুক্তি প্রতীক্ষিত “পাগলের মতো ভালোবাসি” ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন আসিফ নূর ও সুমিত সেন। তরুণ প্রজন্মের তিন নায়ক-নায়িকা আসিফ নূর, সুমিত সেনগুপ্ত ও অধরা খান অভিনীত এই ছবিটি ত্রিভুজ প্রেমের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে। এটি অধরা খানের তৃতীয় ছবি হিসেবে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। কারণ এই ছবিটির পরে শুটিং করা তার দুটি ছবিই এই ছবিটির আগে মুক্তি পেয়েছে।
অধরা খান সারাবিশ্বে চলমান করোনার প্রাদুর্ভাব নিয়ে বলেন, এটা নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে আমাদের সবাইকে স্বাস্থ্য সচেতন এবং সতর্ক হতে হবে। আসুন আমরা সবাই মিলে স্বাস্থ্য সচেতনতা মেনে সতর্কতার সঙ্গে করোনাভাইরাস ছড়ানো রোধ করি। সরকারি নির্দেশ মেনে যার যার বাসায় অবস্থান করে এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলে সবাই সুস্থ থাকি, পরিবার নিয়ে ভালো থাকি।
রোমান রায়