করোনায় আক্রান্ত কনিকা কাপুর

সারাবিশ্বে এখন করোনা ভাইরাসের আতংকে সবাই। হলিউডের গণ্ডি ছাড়িয়ে প্রথমবারের মতো এবার করোনার ছোবল বলিউডে। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ‘বেবি ডল’ খ্যাত বলিউডের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কনিকা কাপুর। করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে বলে নিজেই টুইট করে জানিয়েছেন এই গায়িকা।
দিন কয়েক আগেই যুক্তরাজ্য থেকে ভারতে ফেরেন কনিকা। সেখান থেকে ফিরে স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টাইনে যাননি তুমুল জনপ্রিয় এই শিল্পী। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, বিদেশ যাওয়ার বিষয়টি পুরোপুরি গোপন করেছেন কনিকা।
১০ দিন আগে ভারতে ফিরলেও মাত্র দিন তিনেক আগে তার সর্দি-কাশি-জ্বরের মতো উপসর্গ দেখা দেয়। ডাক্তারের পরামর্শ মতো করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করালে ফল পজিটিভ আসে। বর্তমানে তার পুরো পরিবার কোয়ারান্টিনে আছেন।টাইমস অব ইন্ডিয়াসহ ভারতের বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, বর্তমানে কনিকা লখনৌতে অবস্থান করছেন। সেখানে জর্জ মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।
বিদেশ সফরের তথ্য গোপন করার পাশপাশি আরো একটি অপরাধ করেছেন। আর সেটা হলো, বিদেশ থেকে ফিরে এই গায়িকা ১৫ মার্চ একটি তারকা খচিত পার্টিতেও যোগ দিয়েছিলেন! যেখানে ছিলেন রাজনৈতিক, তারকা অভিনেতা, শিল্পীরা।
গানের জগতে দশক সেরা শিল্পী কনিকা কাপুরের আগমন ২০১২ সালে। তার প্রথম গান জুগনি জি। যা ব্যাপকভাবে বাণিজ্যিকভাবে সাফল্য অর্জন করে নেয়। ২০১৪ সালে তিনি ‘রাগিনি এমএমএস ২’ চলচ্চিত্রের ‘বেবি ডল’ গানের মাধ্যমে বলিউডে কষ্ঠশিল্পী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। যা প্রকাশের পর রাতারাতি সব শ্রেণির শ্রোতা দর্শকদের মধ্যে তাকে পরিচিত করে তুলে। গানটি টপচার্টের শীর্ষস্থান দখল করে নেয়।
এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি এই তারকা শিল্পীর। একে একে তার কণ্ঠে জনপ্রিয়তা পায় কামলি, চিটিয়া কালাইয়া এবং সুপার গার্ল ফরম চায়নার মতো গান।
রোমান রায়