শাবান মাহমুদের লেখা ‘বঙ্গবন্ধুর সারাজীবন’ একুশে বই মেলায়

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মজীবনী, ‌‌’বঙ্গবন্ধুর সারাজীবন’ বইটি লিখেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ।
‘বঙ্গবন্ধুর সারাজীবন’ একুশে বইমেলা ৭৪০/৪১ স্টলে লাবনী প্রকাশনীতে পাওয়া যাচ্ছে।
বইটির লেখক শাবান মাহমুদ বলেন, আমার প্রথম প্রকাশিত রাজনৈতিক বই ‘বঙ্গবন্ধুর সারা জীবন’ প্রথম দিনেই পাঠক মহলের কাছে কৃতজ্ঞ।
এছাড়াও বইটিতে রয়েছে, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ এই বাঙ্গালীর ৫৫ বছরের জীবনের শৈশব থেকে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্ট পর্যন্ত ঐতিহাসিক অধ্যায়গুলো তুলে আনা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম শত বার্ষিকীতে ব্যাপক গবেষণা আর দীর্ঘ সাধনার ফলে মূল্যবান বইটি মহাদেশের সচেতন পাঠকদের কাছে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানার আগ্রহ মেটাবে।
বইটি জয় বাংলা শ্লোগান এর একটি ইতিহাস, শেখ মুজিবসহ সকল রাজবন্দীর মুক্তি, ইয়াহিয়ার ক্ষমতায় আগমন, ৭০ এর নির্বাচন, ২৫ মার্চ পাক বাহিনীর হত্যাকাণ্ড এবং শেখ মুজিব গ্রেফতার। রয়েছে ১৯৪৯ সালের ৮ জানুয়ারি ঢাকার আরমানিটোলা ময়দানে মুসলিম লীগ সরকারের বিরুদ্ধে জুলুম প্রতিরোধ দিবস, ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন ঢাকার রোজ গার্ডেনে মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীকে সভাপতি, শামসুল হককে সম্পাদক এবং শেখ মুজিবুর রহমানকে যুগ্ম সম্পাদক, আওয়ামী মুসলিম লীগ গঠন ।
আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করতে শেখ মুজিবের ধারাবাহিক সংগ্রাম, যুক্তফ্রন্ট, গণ পরিষদ নির্বাচন, ৬ দফা আন্দোলন, আইয়ুব বিরোধী রাজপথের সংগ্রাম, শেখ মুজিবের জবানবন্দী, ইতিহাসের এক অমর সাক্ষী।
শেখ মুজিব, সূর্যসেন, ক্ষুদদিরাম, নেতাজি সুভাষ বোস, প্রীতিলতাকে, তেমনি জন্ম দিয়েছে মীরজাফর, মীরন আর জগত শেঠের, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বিশ্বাসঘাতক, বেঈমানরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের নির্মমভাবে হত্যার মধ্য দিয়ে জন্ম দিয়েছে এক ঘৃন্য ইতিহাসের। এর নিখুঁত বর্ননা উঠে এসেছে বঙ্গবন্ধুর সারা জীবনে, তুলে আনা হয়েছে ১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্টের পর কিভাবে কলকাতা থেকে ঢাকায় ফিরে তৎকালীন মুখ্য মন্ত্রী খাজা নাজিম উদ্দীনের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু অনাস্থা প্রস্তাবে নেতৃত্ব দেন। ১৯৫৩ সালে শেখ মুজিব দলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর ১৯৫৪ সালে অনুষ্ঠিত গণ পরিষদ নির্বাচনে তার ঐতিহাসিক ভূমিকা, কিভাবে তিনি প্রেসিডেন্ট ইস্কান্দার আলী মির্জার কনস্প্রেসি মোকাবিলা করে আওয়ামী লীগকে করেছেন সুসংহত, জাতিকে দেখিয়েছেন স্বাধীনতার স্বপ্ন তারই ঘটনা প্রবাহ বিস্তারিত বর্ননায় প্রামান্য দলিল হিসেবে বর্নিত হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধুর সারা জীবনে’।
আলমগীর কবির