জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৭-২০১৮

গতকাল বরিবার (৮ ডিসেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের ‘হল অব ফেম’ তারকাদের উপস্থিতিতে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে দেওয়া হলো ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৭-২০১৮’। পূর্বঘোষিত বিভাগগুলোতে বিজয়ী তারকাদের হাতে বিকেল ৪ টা ২০ মিনিট থেকে পদক তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী চার গুণী অভিনয় শিল্পীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন। ২০১৭ সালের জন্য আজীবন সম্মাননা পান বর্ষীয়ান অভিনয়শিল্পী এটিএম শামসুজ্জামান ও সালমা বেগম সুজাতা। ২০১৮ সালের জন্য আজীবন সম্মাননা গ্রহণ করেন অভিনেতা প্রবীর মিত্র ও আলমগীর।
২০১৭ সালের জন্য ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ও ২০১৮ সালের জন্য ‘পুত্র’কে দেয়া হয় ‘শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র’র পুরস্কার। ২০১৮ সালে দর্শকদের মন জয় করা ‘পুত্র’ বাজিমাত করেছে পুরস্কারের সংখ্যায়। সর্বোচ্চ ১১ শাখায় পুরস্কার পায় ছবিটি। আর ২০১৭ সালে সর্বাধিক ৭ শাখায় পুরস্কার পায় ‘গহীন বালুচর’।
শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার পান যৌথভাবে শাকিব খান- সত্তা [২০১৭] ও আরিফিন শুভ- ঢাকা অ্যাটাক [২০১৭]। ফেরদৌস [পুত্র] ও সাইমন [জান্নাত] যৌথভাবে ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কার গ্রহণ করেন।
আলোঝলমল আয়োজনে ২০১৭ সালের শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার গ্রহণ করেন নুসরাত ইমরোজ তিশা [হালদা] এবং ২০১৮ সালের দেবী ছবির জন্য গ্রহণ সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শাকিব খান চতুর্থবারের মতো সেরা নায়ক নির্বাচিত হলেন। বিকেল ৪ টা ২৬ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পদক গ্রহণ করেন তিনি।
এবার আসরে পঞ্চমবারের মতো চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস। অন্যদিকে আরিফিন শুভ ও সাইমন সাদিক প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহন করলেন। জয়া আহসান চতুর্থবারের মতো গ্রহণ করলেন এ পুরস্কার। তিশা ‘হালদা’র মাধ্যমে দ্বিতীয়বার পুরস্কার পেলেন।
২০১৮ সালে শ্রেষ্ঠ গায়িকার পুরস্কার পেলেন বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন। একই বছরে সেরা সুরকারের পুরস্কার পেতে পেলেন আরেক বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা।
এবার বিতর্কের মুখে ২০১৭ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ চলচ্চিত্রের ভারতীয় চিত্র সম্পাদক মো. কালাম। ‘শ্রেষ্ঠ চিত্র সম্পাদক’ ক্যাটাগরিতে নতুন কাউকে পুরস্কার দেওয়া হয়নি। এমনকি ‘কমলা রকেট’ ছবির জন্য মোশাররফ করিমকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে হিসেবে নির্বাচন করা হলেও তিনি এ পুরস্কার নিতে রাজি না হওয়ায় তার নাম ঘোষণা করা হয়নি পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে।
পুরস্কার প্রদান শেষ চিত্রতারকাদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় বিভিন্ন জনপ্রিয় গানে পরিবেশনা। এই আয়োজনটি উপস্থপনা করেছেন ফেরদৌস ও পূর্ণিমা।
পরিবেশনা করেন অপু বিশ্বাস, নুসরাত ফারিয়া, তমা মির্জা, ইমন, নিপূন, মাহিয়া মাহি, জায়েদ খান, জয় চৌধুরী, আঁচল। গান পরিবেশন করেন মমতাজ, খুরশীদ আলম,নকীব খান, সামিনা চৌধুরীর মতো গুণী শিল্পীদের পাশা ইমরান, কনা, লিজা।
রোমান রায়