১ নভেম্বর বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে ‘পদ্মার প্রেম’

চিত্রনায়িকা আইরিন অভিনীত নতুন চলচ্চিত্র ‘পদ্মার প্রেম’ ইতিমধ্যে ভারতে মুক্তি পেয়েছে। এবার ভারতের পর বাংলাদেশে মুক্তি পাওয়ার পালা। সত্তর দশকের পদ্মা নদীর পাড় ঘেঁষা একটি গ্রামের মানুষদের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্র ‘পদ্মার প্রেম’। এই ছবি গ্রামের চঞ্চল এক তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন নায়িকা আইরিন সুলতানা।ছবিতে তাঁর নাম রাখা হয়েছে নদীর নামের সাথে মিল রেখে পদ্মা।
ছবির নায়িকা আইরিন জানান, বাংলাদেশী পরিচালক হারুন-উজ-জামান পরিচালিত ছবিটি একসঙ্গে ভারতে বাংলা, ওড়িষ্যাা ও ভোজপুরি ভাষায় ডাবিং করে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। চলতি বছর ২০ সেপ্টেম্বর ‘পদ্মার ভালোবাসা’ নামে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে কলকাতায়। এবার ‘পদ্মার প্রেম’ নামে আগামী মাসের ১ তারিখে ছবিটি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ছবিটি নিয়ে আইরিন দারুনভাবে আশাবাদী বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, কলকাতায় ছবিটির সেল রিপোর্ট ভালো। তাই আশা করছি – আমাদের দেশীয় চলচ্চিত্রের মন্দার বাজারে ছবিটি চলচ্চিত্র দর্শকদের মন জয় সক্ষম হবে।
এই প্রসঙ্গে গø্যামার গার্ল আইরিন বলেন, কলকাতায় মুক্তির পর ছবিটি নিয়ে বেশ ভালো সাড়া পেয়েছি। অনেকেই প্রশংসা করেছেন। এবার আমার নিজ দেশে ১ নভেম্বর ‘পদ্মার প্রেম’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে। দেশের মানুষের যদি ছবিটি আর আমার অভিনীত চরিত্রটি ভালো লাগে তাহলেই আমি তৃপ্তি পাবো।
আইরিন আরও বলেন, পদ্মার প্রেম ছবিতে চিরচেনা গ্রাম বাংলার একটি গল্প দর্শক দেখতে পাবেন। পদ্মা নামের গ্রামের চঞ্চল এক তরুণীর চরিত্রে আমি অভিনয় করেছি। পদ্মার জীবনের নানা দিক ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে। ছবিতে আমার বিপরীতে নায়ক চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুমিত।
২০১৮ সালে ছবিটির কাজ শুরু হয়ে শেষ হয় চলতি বছরের জানুয়ারিতে। পদ্মার প্রেম ছবির শুটিং হয়েছে মানিকগঞ্জের পদ্মা নদীর পাড়ে। ছবিতে আইরিন – সুমিত জুটি ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন সাদেক বাচ্চু, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, আলেকজান্ডার বো, মুনমুনসহ অনেকে।
আইরিন জানান, তার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষায় আরও রয়েছে বুলবুল জিলানী পরিচালিত ‘রৌদ্রছায়া’, সাইফ চন্দনের ‘টার্গেট’, শফিকুল ইসলাম সোহেলের ‘ভোলা’ এবং অরণ্য পলাশের ‘গন্তব্য’ ছবিগুলো। এছাড়াও নির্মাণাধীন আছে তার অভিনীত “সেফ লাইফ” ছবিটি।
রোমান রায়