আমার নিজের প্রয়োজনে মিথ্যা বলেছি

ঢালিউড কুইন অপু বিশ্বাস স¤প্রতি ধর্মীয় ইস্যু সহ সমসাময়িক অনেক মন্তব্যে নতুন করে আলোচনায় এসেছেন। বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেওয়া তার মন্তব্য নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছেন এই নায়িকা। স¤প্রতি গণমাধ্যমের বিশেষ একটি অনুষ্ঠানে হাজির হয়ে অপু জানালেন শাকিবকে বিয়ে করার পরের মুহূর্তগুলোতে তিনি ক্যামেরার সামনে বেশ কিছু মিথ্যা বলেছেন।
অপু বলেন, ‘শাকিব খানের ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করে (যেহেতু সে আমার স্বামী ছিলো) আমি অনেক মিথ্যা বলেছি। কোনো প্রোগ্রামে আমরা একসাথে গেলে আমি শাকিবকে বলতাম কখন বিয়ে করছো? বা শাকিব আমার বিয়ের বরণ ঢালা সাজাবে এরকম কথা বলতো, বাস্তবে আমরা কিন্তু তখনই স্বামী-স্ত্রী। মিথ্যা বলে গিয়ে রাতে আমিই তাকে রান্না করে খাওয়াচ্ছি।’
অপু কোন ধর্মের রীতি অনুসরণ করছেন জানতে চাইলে বলেন, ‘আমি যখন শাকিবকে বিয়ে করি তখন নিজেকে মুসলিম হিসেবে দাবি করেছি। এছাড়া ক্যামেরার সামনেও এটাই বলেছি। কারণ আমার ছেলে আছে, তারও তো একটা পরিচয় আছে। তবে সত্য কথা বলতে, আমি সবসময় হিন্দু ধর্মেরই ছিলাম। একটা ধর্ম থেকে অন্য একটা ধর্মে যেতে অফিশিয়াল যে ফরমালিটিজ মেইনটেইন করতে হয় আমার বেলায় সেটা হয়নি।’
আমার নিজের প্রয়োজনে মিথ্যা বলেছি। এখন আমার ছেলে বড় হচ্ছে। তার বাবা যেহেতু মুসলিম সেও মুসলিম। তবে যখন বড় তখন দেখা যাবে আসলে সে কোন পথে যেতে চাচ্ছে- যোগ করেন অপু।
অপু বিশ্বাস বলেন, আমি যেমন ক্যারিয়ারের জন্য শাকিবের সঙ্গে বিয়ের কথা প্রকাশ করেনি, যদিও আমি বিশাল একটি কথা বলেছিলাম ধর্ম নিয়ে। এই ধর্মের সাথে লুকানো ছিল আমার সন্তান। কিন্তু আজকে মনে হচ্ছে, আমি যদি কালকে মারা যাই আপনারা আমাকে দাফন নাকি দাহ করবেন! সেই ভয় বা সংশয় থেকে আজকে এই সত্যতা বলে দিলাম, আমাকে দাহ করা হবে, দাফন নয়!
রোমান রায়