মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৯

নতুন আঙ্গিকে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ নিয়ে হাজির হচ্ছে অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট। প্রতিষ্ঠানটি বিশ্বাস করে বাংলাদেশের মেয়েরা সৌন্দর্য ও বুদ্ধির সম্মিলন ঘটিয়ে বিশ্ব জয় করবে। প্রায় ত্রিশ হাজার প্রতিযোগী হতে বাছাই শুরু হতে যাচ্ছে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে। যোগ্য প্রতিযোগী বাছাই ও তাদের যোগ্যভাবে তৈরি করতে এবারের আয়োজনে তিন বিচার দায়িত্ব পালন করবেন। প্রধান এই তিন বিচারকের সঙ্গে সাংবাদিকদের পরিচয় করিয়ে দিতে শনিবার বিএফডিসির ৮নং ফ্লোরে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ আসরের এবার তিন স্বনামধন্য বিচারক হলেন-জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা মৌসুমী, চিত্রনায়ক ফেরদৌস এবং বিউটি এক্সপার্ট ফারজান আলম।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অমিকন এন্টারটেইনমেন্টের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান,এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ডঃ মাহফুজুর রহমান,এক্সপার্ট প্রোভাইডারস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অপু খন্দকার,এক্সোজার এর সিইও সজীব রশীদ।অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন টেন মিনিট স্কুল এর সিইও আয়মান সাদিক,জাগো ফাউন্ডেশনের করভী এবং আরো অনেকে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট এর চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মেহেদী হাসান বলেন, এবারের ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ ২০১৯ শুধুমাত্র বিউটি কন্টেস্টের মাঝেই সীমাবদ্ধ থাকছেনা বরং “ইবধঁঃু রিঃয ধ ঢ়ঁৎঢ়ড়ংব” এর চেতনাকে সফল করার জন্য প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এই প্লাটফর্মটি সামাজিক সচেতনামূলক উন্নয়ন কাজেরও অংশীদার হচ্ছে। “মিস ওয়ার্ল্ড” বিশ্বের একমাত্র সুন্দরী প্রতিযোগিতা যার বিজয়ী সরাসরি ইউনাইটেড নেশনে কাজ করার সুযোগ পেয়ে থাকে।
এটিএন বাংলার চেয়ারম্যান ডঃ মাহফুজুর রহমান বলেন, গতবারও আমরা এর ব্রডকাস্ট পার্টনার ছিলাম।এবারও আমরা মিডিয়া পার্টনার হলাম।এর জন্য আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ দিতে চাই। এখানে সুন্দরের চেয়ে বুদ্ধির প্রাধান্য বেশী থাকবে।এবং বিচারকরা কোনো রকমের পক্ষপাতিত্ব করবেন এটা আশাকরছি। যোগ্য প্রতিযোগী হইয়ে একটা ভালো স্থান করে নিতে পারবে এবং বিশ্বের কাছে আরো ভালো মতো পরিচিত করতে পারবে বলে এই প্রত্যাশা করছি।
চিত্রনায়ক ফেরদৌস বলেন, তৃতীয় সিজনে আমাকে বিচারক হিসেবে নির্বাচন করায় আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।আমি ও মৌসুমী একসাথে সিনেমায় জুটি বেঁধে অনেক কাজ করলেও এই প্রথম বিচারকের আসনে একসঙ্গে।আমরা আমাদের বেস্ট এফোর্ড দিয়ে সেরা প্রতিযোগী বের করে নিয়ে আসবো।প্রতিযোগীদের আত্মবিশ্বাসী হতে হবে।দেশের মেয়ে হয়ে যদি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে এই খেতাবটি নিয়ে আসতে পারে,তাহলে এটা হবে দেশের জন্য বিরাট সম্মানের।আশাকরি সেইদিন আর দূরে নেই।
চিত্রনায়িকা প্রিয়দর্শনী মৌসুমী বলেন,প্রথমেই আমি ধন্যবাদ দিতে চাই এখানে উপস্থিত সকল সাংবাদিক ভাইদের’কে।যাদের নিয়ে আমাদের এই পথচলা। আমি মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ এর বিচারক হয়েছি এটা সত্যি অনেক আনন্দের আবার নার্ভাসও কাজ করছে।এটা শুধু বিউটি কন্টেস্ট নয়,এখানে নারীদের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে দেখা হবে।অনেক পুরুষের চোখে সুন্দর নারী মানেই বুদ্ধিহীন হয়,কিন্তু একজন সুন্দরী হয় তার আই কন্টাক্ট,বডি ল্যাঙ্গুয়েজ,বাচনভঙ্গি এই সবকিছু দিয়ে সে একটা পরিবেশ বদলে দিতে পারে।অনেক পুরুষ নারীদের এই সমাজে গুরুত্বপূর্ণ ভাবেন।আমাদের যে ফরম্যাটে দেয়া হবে আমরা সেই ফরম্যাটে কাজ করবো।
তবে, আয়োজকদের প্রতি আমার অনুরোধ থাকবে আমাদেরকে যেনো পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়া হয়।তাহলে আমরা এই ফরম্যাট’কে আরো এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবো। আমাদের সৎসাহস,সততা এই নিয়ে আমরা আমাদের কাজটা করবো।
এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ বিজয়ী আগামী ১৪ ডিসেম্বর লন্ডনে ৬৯ তম আসরে অংশগ্রহণ করবেন।
রোমান রায়