এবার হলিউডেও ঝাঁসির রানির বায়োপিক

কঙ্গনা রানাউতের ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অফ ঝাঁসি’র পর লক্ষ্মীবাঈ-এর কাহিনি এবার হলিউডের পর্দায়। ভারতীয় ইতিহাসের পাতায় যখন পাশ্চাত্যের ছোঁয়া পড়ে সেই প্রজেক্ট নিয়ে যে আর পাঁচ জন সিনেদর্শকদের উৎসাহ, কৌতূহল থাকবেই, তা বলাই বাহুল্য। হলিউডি সেই ছবির নাম ‘ওয়ারিয়র কুইন অফ ঝাঁসি’। সম্প্রতি সেই ছবিরই টিজার মুক্তি পেল। ‘ওয়ারিয়র কুইন অফ ঝাঁসি’তে ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ-এর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দেবিকা বিসে। ‘রণং দেহি’ রূপে দেবিকাকেও দিব্যি লাগছে লক্ষ্মীবাঈয়ের বেশে। অতঃপর, পর্দায় ঝাঁসির রানিকে ফুটিয়ে তুলতে তিনি যে কিছু কম কসরত করেননি, তার আভাস মিলেছে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত টিজারেই। তবে এই ছবির বিশেষত্ব দুটি। প্রথমত, দেবিকা তাঁর মায়ের পরিচালনায় কাজ করছেন। এবং দ্বিতীয়ত, এই প্রথম মা স্বাতী বিসের পরিচালনায় ভারতের কোনও ঐতিহাসিক চরিত্রে অভিনয় করছেন দেবিকা। ‘ওয়ারিয়র কুইন অফ ঝাঁসি’তে অভিনয় করছেন রুপার্ট এভারেট, বেন ল্যাম্ব, ডেরেক জ্যাকোবি, যতীন কারেকর, মিলিন্দ গুণাজি, অজিঙ্কা দেও এবং আরিফ জাকারিয়া। প্রযোজনা করেছেন ছবির পরিচালক স্বাতী বিসে নিজেই।
কঙ্গনার ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অফ ঝাঁসি’কে নিয়ে জন্মলগ্ন থেকেই বিতর্ক হলেও বক্সঅফিসে বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছিল সেই ছবি। প্রসঙ্গত, ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ মহিলাদের মধ্যে সম্মুখসমরে শহিদ হওয়া সম্ভবত প্রথম। বেনারসের মণিকর্ণিকা ঘাটে সদ্যোজাত শিশুটিকে কুড়িয়ে পেয়েছিলেন এক পেশোয়া। ঘাটের এক পূজারী ব্রাহ্মণই তাঁর নাম দেন ‘মণিকর্ণিকা’। পালিত বাবার শাসনে ও শিক্ষায় মণি বড় হয়ে ওঠেন আত্মসাহসী এক ‘যোদ্ধা’ হয়ে। আর যৌবনে পা দিতেই তাঁর বিয়ে হয়ে যায় ঝাঁসির রাজপুত্রের সঙ্গে। বিয়ের পর তাঁর নতুন নামকরণ হয় লক্ষী। সেই লক্ষীবাঈকে নিয়েই এবার হলিউডে সিনেমা তৈরি করছেন স্বাতী বিসে।
অঞ্জন দাস