কলকাতার এসকে মুভিজের জন্য দীপের ৫০ গান

কলকাতার প্রভাবশালী প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে মুভিজ। এদেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খানকে নিয়ে ‘শিকারী’, ‘নবাব’, ‘চালবাজ’, ‘ভাইজান এলো রে’র মতো ছবি বানিয়েছে তারা। সেখানকার দেবকে নিয়ে ‘খোকাবাবু’, ‘খোকা ৪২০’, জিতকে নিয়ে ‘শত্রু’, ‘ওয়ান্টেড’, অংকুশকে নিয়ে ‘খিলাড়ী’, ‘কানামাছি’র মতো হিট ছবি উপহার দিয়েছে এই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি। এবার ছবির পাশাপাশি গান প্রযোজনায় নাম লেখালো এসকে মুভিজ।
এসকে মিউজিকের ব্যানারে ১০০ গান করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। প্রীতমের সুর ও সংগীতে গানগুলোর রেকর্ডও শুরু হয়েছে। দু-একদিনের মধ্যে প্রকাশ পাবে প্রথম গান ‘এক পা দু পা’। আর গানটি লিখেছেন বাংলাদেশের এই সময়ের সবচেয়ে ব্যস্ততম গীতিকার সুদীপ কুমার দীপ। শুধু তাই নয়, এই প্রতিষ্ঠানের হয়ে অর্ধশতাধিক গান লেখার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। এরমধ্যে ১০টির বেশি গান রেকর্ডও হয়েছে বলে জানান সুদীপ কুমার দীপ।
তিনি বলেন, ‘আমি ভাগ্যবান গীতিকারদের একজন। মাত্র ক্যারিয়ার শুরু। অথচ এরমধ্যেই বাংলাদেশে ৮০টির ওপর ছবিতে গান লিখেছি। সাড়ে তিন কোটি, তিন কোটি বা দুই কোটি ভিউস পার হওয়া অনেক গান আছে আমার ঝুলিতে। যেটা বাংলাদেশের সিনেমার গানে খুব কম দেখা যায়। তিনি বলেন, এসকে মুভিজের ব্যানারে মুক্তি পাওয়া ‘আমি নেতা হবো’ ছবির ‘চুম্মা’ গানটা আমার লেখা আর প্রীতমদার সুর ও সংগীত ছিল। সুপার হিট হওয়া গানটির পর এসকের কর্ণধার হিমাংসু ধানুকাকে প্রীতম দা আমার নাম প্রস্তাব করেন। ধানুকাও রাজি হয়ে যান।
কলকাতার ছবিতে বাংলাদেশের অন্য গীতিকাররাও নিয়মিত গান লিখবেন, এমনটা প্রত্যাশা করে সুদীপ বলেন, সত্যি বলতে, আমাদের দেশের প্রযোজক পরিচালকরা যখন ভারতীয় গীতিকার-সুরকারের পিছে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন সেখানে বাংলাদেশি হয়ে আমি ভারতে গান লিখছি, এটা খুব গর্বের। আমার স্বপ্ন, শুধু আমি নই, একদিন অন্য গীতিকাররাও নিয়মিত কলকাতায় লিখবে।’
অঞ্জন দাস