‘ফাহিম’ মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ

এই প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হল মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ। এতে পাঁচ হাজার প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ জয় করে নিলেন মেহেদী হাসান ফাহিম। যৌথভাবে প্রথম রানার আপ হয়েছেন মাহাদী হাসান ও হানিফ। যৌথভাবে দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন আহসান রাজ ও হামজা খান চৌধুরী।
মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ হওয়ার অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ফাহিম বলেন, এটা স্বপ্নের মতো লাগছে। এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না। তবে সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আমার দ্বায়িত্ব এখন বেড়ে গেলো অনেক। সঠিকভাবে এ দ্বায়িত্ব পালনের চেষ্টা করে যাবো সব সময়।
গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন সিটির রাজদর্শন হলে আয়োজন করা হয় ‘সজীব গ্রæপ মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্ব। নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাত ১২টায় বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। প্রতিযোগিতার মূল আয়োজনে প্রধান বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন বুত্থান মার্শাল আর্টসের জনক, বজ্রপ্রাণ ধ্যান-সাধনা পদ্ধতির প্রতিষ্ঠাতা ড. ম্যাক ইউরি, প্রখ্যাত গেরিলা যোদ্ধা, ওরা ১১ জন চলচ্চিত্রখ্যাত নায়ক কামরুল আলম খান খসরু।
এছাড়াও বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন মডেল- অভিনেতা সানজু জন, মডেল প্রিন্স এবং ওয়াল মার্ট’র ফ্যাশন ডিজাইনার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন। উপস্থাপনায় ছিলেন আরজে সায়েম ও প্রাবণ্য তৌহিদা।
‘মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ প্রতিযোগিতার আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের কর্ণধার স্বপন চৌধুরী বলেন, সারা বাংলাদেশ কয়েক হাজার প্রতিযোগী থেকে বিভিন্ন ধাপে সেরা দশজন বাছাই করা হয়। বিভিন্ন গ্রুমিং শেষে নানা প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে মিস্টার ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ নির্বাচিত হলো।
এদিকে এ প্রতিযোগীতার সেরা দশে ছিলেন আহসান রাজ, হানিফ, এ. রব, জয়তু চৌধুরী, মাহাদী হাসান ফাহিম, হামজা খান চৌধুরী, জুবায়ের খান, রাসেল আহম্মেদ, মেহেদী হাসান এবং সুজন ইসলাম।
এ আয়োজনের চ্যাম্পিয়ন ফাহিম আগস্টের শেষ ভাগে ফিলিপাইনের ম্যানিলায় অনুষ্ঠিতব্য ‘মিস্টার ওয়ার্ল্ড’-এ বাংলাদেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন। ‘মিস্টার ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় এখন পর্যন্ত ৭২টি দেশের প্রতিনিধি চূড়ান্ত হয়েছে।
রোমান রায়