বনানীতে ক্যাফে মিলানো

ভোজন পিয়াসীদের জিভে জল আনতে সম্প্রতি চালু হলো নতুন রেস্টুরেন্ট “ক্যাফে মিলানো”। ঢাকার বনানী ১১ নম্বর রোডের ১১ নম্বর পয়েন্ট এর ২৫ নম্বর বাড়ির দোতলায় রেস্টুরেন্টটি চালু হয়েছে।
উদ্বোধন হওয়ার পর থেকে ইতিমধ্যে এটি ভোজন রসিকদের মন জয় করে নিতে সক্ষম হয়েছে। রেস্টুরেন্টের মজার মজার সব খাবার রেস্টুরেন্টে আগতদের রসনার তৃপ্তি মেটাচ্ছে। সবাই এখনকার কন্টিনেন্টাল খাবারগুলো দারুন পছন্দ করেছেন বলে জানালেন ক্যাফে মিলানোর অন্যতম মালিক মো: ইফাজ খান।
এই প্রতিবেদককে তরুণ রেস্টুরেন্ট ব্যাবসায়ী মো: ইফাজ খান জানান, এপিয়াটাইজার্স, স্যুপ, সালাদ, বার্গার, ওভেন বেকড পাস্তা, প্যান পাস্তা, হ্যান্ড স্ট্রেচ পিজা, স্পেশাল পিজা, ডিপ ডিশ পিজা, সুপ্রিম ডিলাইটস, মেক্সিকান ফুড, স্টেক্স, সেট মিল, রেফেল, সাইড, রু অনস ক্যাটাগরির ৮১ রকমের খাবার রেস্টুরেন্টে পরিবেশন এবং পার্সেল করা হয়। এছাড়াও কফি, আইস টি, ফ্রেশ জুস, লেমনেড, মোজিতো, স্মুদিস, ফ্যাপি, শেক্স সহ ৫৩ রকমের বেভারেজ জাতীয় খাবার পাওয়া যায়।
মো: ইফাজ খান জানান, চট্টগ্রামের বহুল জনপ্রিয় রেস্টুরেন্ট মিলানোর ঢাকায় প্রতিষ্ঠিত প্রথম চেইন আউটলেট ক্যাফে মিলানো।
তিনি জানান, ক্যাফে মিলানোতে একসঙ্গে ৬০ জন অতিথির বসার ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে জন্মদিন, ম্যারেজ ডে, সহ বিভিন্ন পার্টি আয়োজনেরও সুব্যবস্থা রয়েছে।
ভবিষ্যতে ঢাকায় আরও অন্তত ৩/৪ টি আউটলেট করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান মো: ইফাজ খান। তিনি বলেন, ভোজন রসিকদের জন্যে মজাদার ও তৃপ্তিদায়ক খাবার পরিবেশনের মাধ্যমে ক্যাফে মিলানো সবার মাঝে আলোচিত হচ্ছে। আমার বিশ্বাস আমাদের মান সম্মত খাবার সন্তোষজনক সার্ভিসের কল্যানে খুব শীঘ্রি ক্যাফে মিলানো বাংলাদেশের প্রথম সারির দেশীয় ব্র্যান্ডের রেস্টুরেন্ট হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেতে সক্ষম হবে। আর ঈদের পর আরও কিছু নতুন খাবারের প্রমোশনাল অফার আছে আমাদের সম্মানিত অতিথিদের জন্যে।
তুষার আদিত্য