পশ্চিমবঙ্গের ৩৪ প্রেক্ষাগৃহে বাংলাদেশের ‘হাওয়া’

চলতি বছরের আলোচিত সিনেমা ‘হাওয়া’ এবার মুক্তি পেতে যাচ্ছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে। মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ও চঞ্চল চৌধুরী অভিনীত সিনেমা ১৬ ডিসেম্বর সেখানকার ৩৪টি প্রেক্ষাগৃহে দেখা যাবে। ভারতে সিনেমাটির পরিবেশক রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্টের শ্রেয়াসী সেনগুপ্ত বলেন, সিনেমাটি ভারতে ব্যাপকভাবে মুক্তি পেতে চলেছে। ২৯ জুলাই বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছিল ‘হাওয়া’। এরপরই সেখানকার চলচ্চিত্রপ্রেমীদের কাছে ব্যাপক সাড়া পেয়েছিল। ‘হাওয়া’ এখনো প্রেক্ষাগৃহে চলছে এবং সাফল্যের সঙ্গে ব্যবসা করছে যাচ্ছে। সিনেমাটি ভারতেও মাইলফলক সৃষ্টি করবে। শ্রেয়সীর অভিমত, সিনেমাটি ব্যবসায়িক সাফল্য আনবে পশ্চিমবঙ্গের গ্রাম ও মফস্বলের প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। এমনিতেই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসবে আটবার স্ক্রিনিং হয়েছে, এরপর ১৬ তারিখ কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে আরো একবার স্ক্রিনিং হবে। সচেতন সিনেমাপ্রেমীরা সিনেমাটি দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন। ‘হাওয়া’ ভারতে দেখানো হবে সিঙ্গাপুরের সংস্থা কন্টিনেন্টাল এন্টারটেইনমেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড দ্বারা রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্টের মাধ্যমে। এমনটিই জানিয়েছে সিনেমাটির প্রযোজনা সংস্থা সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্স লিমিটেড। অজয় কুমার কুন্ডু বলেন, আশা করি- ভারতেও ‘হাওয়া’ সিনেমাটি সাফল্য পাবে । সিনেমাটি মুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশের সৃজনশীল মানুষের গর্বিত মুহূর্তের সাক্ষী হবে ভারত। এরমাধ্যমে বিশ্বে আরো অনেক বাংলাভাষী মানুষের কাছে পৌঁছাতে সক্ষম হব আমরা। এই সিনেমার সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। সমুদ্রের পানির সঙ্গে মিশে যাওয়া জেলেদের গল্পে নির্মাণ হয়েছে ‘হাওয়া’। এটি নির্মাণের পাশাপাশি কাহিনি এবং সংলাপ লিখেছেন মেজবাউর রহমান সুমন। সিনেমাটিতে চঞ্চল চৌধুরী ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন নাজিফা তুষি, শরীফুল ইসলাম রাজ, সুমন আনোয়ার, নাসির উদ্দিন খান, সোহেল মণ্ডল, রিজভী রিজু, মাহমুদ হাসান এবং বাবলু বোস।

মোহাম্মদ তারেক